বন্ধ হচ্ছে কাঁটাবনের 'কবিতা ক্যাফে'
$post->title

নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ধাক্কায় এবার বন্ধ হতে যাচ্ছে রাজধানীর কাঁটাবনের 'কবিতা ক্যাফে'। ইতোমধ্যে ভবনের মালিককে বন্ধের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে বুধবার  নিশ্চিত করেছেন কবিতা ক্যাফের পরিচালক নাহিদা আশরাফী।

তিনি বলেন, ভবন মালিকের সাথে চুক্তি অনুযায়ী দুই মাস আগে জানাতে হয়। যার জন্য আরও দুই মাস আমাদেরকে ভাড়া দিতে হবে। কিন্তু এই সময় খোলা রেখেও তো লাভ নেই। বিগত তিন মাস ধরে এটি বন্ধই রয়েছে। আর দুই মাস পর কবিতা ক্যাফে পুরো বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

চলতি সপ্তাহে কাঁটাবনের বুকশপ ক্যাফে দীপনপুর বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বনানীতে পেন্সিল নামের একটি বইয়ের দোকানও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই ধারাবাহিকতায় এবার যোগ হচ্ছে কবিতা ক্যাফে।

রাজধানীর মানুষের সৃজনশীল ও মননশীল রুচি তৈরির জন্য এই বুক ক্যাফেগুলোকে বাঁচাতে সরকারের প্রণোদনা দেয়া উচিত বলে মনে করেন তরুণ কবি ও নাট্যকার অপু মেহেদী। তিনি বলেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে প্রণোদনা ঘোষণা করে দীপনপুর, কবিতা ক্যাফে'র মতো বইয়ের দোকানগুলোকে রক্ষা করা জরুরি। শুধু চাইনিজ রেঁস্তোরা, আর শপিং মল দিয়ে একটা শহরের মানুষের মনন তৈরি হয় না।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে রাজধানীর কাঁটাবনে কবিতা ক্যাফে যাত্রা শুরু করে। ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে এনে পূর্ণাঙ্গ বুক ক্যাফে হিসেবেই পরবর্তীতে কার্যক্রম পরিচালনা করছে প্রতিষ্ঠানটি। তাদের সংগ্রহে রয়েছে কয়েক হাজার বই। ক্যাফেতে রয়েছে হালকা নাস্তা থেকে শুরু করে চাওমিন, বার্গারের মতো আইটেমও। এমনকি দুপুরের লাঞ্চেরও ব্যবস্থা রয়েছে। একপাশে ছোট একটি মঞ্চে নিয়মিত আয়োজিত হয় অনুষ্ঠান। প্রতি সপ্তাহে ২-৩টি অনুষ্ঠান হতো কবিতা ক্যাফেতে। শিল্প-সাহিত্যভিত্তিক অনুষ্ঠানের জন্য কবিতা ক্যাফে রাজধানীর সাহিত্য অনুরাগীদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। কিন্তু বিগত তিন মাস ধরে করোনার ধাক্কা সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

কবিতা ক্যাফের পরিচালক নাহিদা আশরাফী বলেন, কর্মীদের বেতন ও ভবনের ভাড়া বাবদ প্রতি মাসে ১ লাখ ২০ হাজার টাকার মতো খরচ হয় কবিতা ক্যাফে পরিচালনায়। বই বিক্রি করে তো খরচ ওঠানো যায় না। তাই অল্প খাবার বিক্রি করার মধ্য দিয়ে খরচ পোষানোর চেষ্টা করা হতো। কিন্তু করোনার ধাক্কায় পুরো লোকসান গুণতে হচ্ছে। প্রায় ১০ লাখ টাকার মতো লোকসান গুণতে পারলে হয়তো প্রতিষ্ঠানটি বাঁচানো যেতো। কিন্তু সেটা করতে পারছি না।


সাবস্ক্রাইব করুন! মেইল দ্বারা নিউজ আপডেট পান