কবি আরিফুল ইসলাম এর তৃতীয় কাব্যগ্রন্থ প্রি-অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন
ম.ফ. হাসান রাব্বি'র কবিতা
$post->title
ক্যাবারে


সন্ধ্যে নামলে জেগে ওঠে বিলাসী বকুল - মেঘ ভর করে তৃষিত হৃদয়ে।

কাকতাড়ুয়ার ক্যানভাসে মিশে থাকে - সহস্রাব্দ ইতিহাস।

ক্যাবারে বেজে ওঠে - মখমলে ঢাকা খুন। ভুলে যেতে চাই রক্তাক্ত

বেদনা - অ্যালকোহলিক সুরে।

এখানে, আমরা ক্ষুধা মিটাতে চাই:ক্রেতা বিক্রেতা।

বিষাক্ত ছোবলে নীল হলেও - মনোরঞ্জন প্রতিষ্ঠার প্রতিযোগিতা।

পাপবোধ-অপরাধ-ঈশ্বর ম্রিয়মাণ এখানে,

উজ্জল শূন্যতার বুক।

সাগর

 

বুক ভর্তি ফসফরাসের ফেনা তুলে -

তুমি আঁচড়ে পড়ো উপকূলে।

তোমার বিশালতা ধোঁয়াশার মত -

যেন অসীম এক বিষ্ময়।

তুমি ধারণ করে আছো -

ধরণীর প্রাণ।

গভীরতার ভাঁজে ভাঁজে ছড়িয়ে আছো -অপার সম্ভাবনার সৌন্দর্য।

তুমি চির যৌবন;নীল জলে ভালবাসে উৎসুখ পর্যটক।

তোমার স্পর্শে অষ্টাদশী রমণী -

পরম পুলকে স্নানে নামে।

এ এক সৌন্দর্যের রহস্যময়তা -

তরী বইয়ে দেয় বুকে ভাস্কো দা গামা।

তুমি তো জলজ সামুদ্রিক এক -

তোমার অঙ্গ জুড়ে বিচিত্র আভাস।

আহ্বান 

ভয় ও ভীতি সঞ্চারিত হলে যেমন আমরা ফিরে যাই এবাদতখানায়।

তোমরাও কি ফিরে যেতে চাও?

পুরনো প্রেমিকার হৃদয়ে।

ম্যাপল উদ্যানে শুয়ে আছে ক্ষুধার কান্না।

পূর্ণিমা মেঘে ডেকে ওঠে পিউকাহা - এসো সমূয়েল,

মিলিত হও বিষন্ন আঁধারে।

ব্যাথা ছুটে গ্যাছে শুক্রানুর মগজ বয়ে।

আজ এখানে দো-ভাষীর প্রয়োজন নেই।

চোখ বলবে মনস্তাত্ত্বিক যত যাপিত শিৎকার।


সাবস্ক্রাইব করুন! মেইল দ্বারা নিউজ আপডেট পান