মৃন্ময় চক্রবর্তী  এর কবিতাগুচ্ছ
$post->title

কবি : মৃন্ময় চক্রবর্তী

মৃন্ময় চক্রবর্তী : জন্ম- ১৯৭৬ , দক্ষিণ কলকাতার ঢাকুরিয়ায়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন চারুচন্দ্র কলেজ থেকে বাণিজ্যে স্নাতক। প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ : বেঁচে থাকার স্বপ্নগুলি ( ২০০৪), এই মৃগয়া এই মানচিত্র ( ২০০৮)। পাঁচালি কাব্য: ভুখা মানুষের পাঁচালি ( ২০০৯), ছিন্নপদগ্রাম (২০১৮)। গল্পগ্রন্থ 'অপারেশন ড্রিম হান্ট ও অন্যান্য গল্প'(২০১৯)। পুরস্কার : এপার ওপার সাহিত্য সম্মান ২০১৮


হারানো সংলাপ

 

উঠোনে বিড়ালের মত আড়মোড়া ভাঙছে রোদ

এবার উঠব, ট্রেনটা অপেক্ষা করছে

যেতে হবে অনেকখানি পথ

দুটো ঘুঘু ঝটপট করছে কলা বনে,

এখন সময় নেই

যদি পার চলে এস,

গোলাপি ইঁটভাটায় দেখা হয়ে যাবে

ওখানে আদিগঙ্গার গোপন স্রোতের মত

বয়ে যাচ্ছে হারানো সংলাপ

ভাটার চিমনি পুরোনো অস্ত্রের মত

উঁচিয়ে রেখেছে স্পর্ধার ইতিহাস

যদি আসতে পার এসো

ইঁটের পাঁজার পাশে কচুঝোপে কটাশ সর্দার

লুকিয়ে রেখেছিল রেডবুক

এসো খুঁড়ে দেখি

স্বপ্নগুলো অটুট আছে কিনা!


হায়দারদা ভাল আছ

 

হায়দারদা ভাল আছ?

 

ক্লান্ত ভ্যানের চাকা টেনে নিয়ে যাচ্ছে তোমাকে

মাতাল সূর্যের ক্রোধ শুষে নিচ্ছে নিত্য পরমায়ু

 

হায়দারদা ভাল আছ?

 

লুঙ্গির সর্বাঙ্গজুড়ে ছেঁড়া ফাটা সংসারের ফোঁড়,

বিবর্ণ স্বপ্নগুলো এখনো রেখেছো কাঁধজুড়ে?

 

হায়দারদা ভাল আছ?

 

আমাদের প্রিয়রঙ- পাণিগ্রাহী গাও কি এখনো,

এখনো কি সন্ধ্যা হলে বাড়ি ফিরে আসর বসাও?

 

হায়দারদা ভাল আছ ?

 

তোমার স্বপ্নগুলো আঁকে নাকি আলতা- পোস্টার,

দিনের উপার্জন ফেলে ছোটে নাকি সভা সেমিনারে?

হায়দারদা আমি যে জানিনা কিছুই

এতদিন পরে ফের

দেখা হল ক্লান্ত দ্বিপ্রহরে

বিষণ্ণ চোখের ম্লান চুরমার করে দিল হাসি

হায়দারদা বলেছিলে, ভাল আছ ভাল আছ সাথী?

আমি কিছুতেই বলতে পারিনি হায়দারদা

এখনো এখনো ভালবাসি!

তুমি বলেছিলে সময় বড় উথালপাথাল

হায়দারদা আমি কিছুতেই বলতে পারিনি

আগামীকাল

আবার দেখা হবে কিনা!


আমাদের কোনো পাবলো নেরুদা নেই

 

ওরা যখন আপনাকে নির্বাসন দিয়েছিল

তখনও আপনি পাহাড়ি ঘরটায় বসে

ঢেউয়ের সঙ্গে কথা বলতেন,

দূর অতলান্তিক আন্দিজ পেরিয়ে এসে

আপনার কাছে বসে থাকত চুপচাপ

একদিন একটা চড়াই পাখি উড়ে এসে

আপনার কাঁধে বসেছিল,

আপনি হয়ত তাকে আদর করে নাম দিয়েছিলেন মিগুয়েল

 

স্পেনের জেলখানায় মারা যাওয়া

গরীব কবি মিগুয়েলকে

আপনি বড় ভালোবাসতেন

তার মৃত্যুতে আপনি হাউহাউ করে কেঁদেছিলেন

মিগুয়েল হারনানদেজ স্পর্শ করেছিলেন আপনার আত্মাকে,

আপনিও মিগুয়েলকে

একটা সামান্য চড়াই হয়ত আপনাকে

চিলি, স্পেন এবং পৃথিবীর সমস্ত ভালোবাসাগুলোর কথা মনে পড়িয়ে দিত

 

আপনি নেই, ধূসর হয়ে গেছে চারপাশ

কবিতার ভেতরে কোনো আত্মা নেই

আত্মার ভেতরে কোনো কবি নেই

আমাদের চারপাশে কোনো পাবলো নেরুদা নেই আজ আর!


সাবস্ক্রাইব করুন! মেইল দ্বারা নিউজ আপডেট পান