সমকালীন দুটি ছড়া
$post->title
সুস্থতা কি বাংলাদেশের মানচিত্রে নেই?

তাকাবো কই? পোড়া আকাশ , মাঠও কেমন জ্বলে
বারুদ পোড়ার গন্ধ ভাসে জলে এবং স্থলে
কান ফেটে যায় ভোকাল শুনে,মাইকে ঝড়ের ধেই-
সুস্থতা কি বাংলাদেশের মানচিত্রে নেই?

আজ হরতাল, কাল অবরোধ, পরশু ধরাধরি
সাজলো সবাই এক পায়ে বক , নেইতো নড়ানড়ি
ঘর পুড়ে যায়, চাল উড়ে যায়, নেই কোথাও খেই
সুস্থতা কি বাংলাদেশের মানচিত্রে নেই?

ভাগের কলা কে খাবে না? কে দেবে গো ছাড়?
টানাটানির মধ্যে দেখি বাংলাদেশের হাঁড়
ঘূর্ণিঝড়ের পাচ্ছি আভাস। চেয়েছি কি এই-
সুস্থতা কি বাংলাদেশের মানচিত্রে নেই?

রবীন্দ্রনাথ মিথ্যে তবে? বিশ্বাসে কি ঘুণ?
মহামানব আসবে কবে? কে থামাবে খুন?
কে থামাবে জ্বালাও পোড়াও, কোথায় এখন সেই?
সুস্থতা কি বাংলাদেশের মানচিত্রে নেই?

আয় আয় ভাগ করি

আয় আয় ভাগ করে লুটেপুটে খাই
আমি রাখি ষাড় গরু তুই রাখ গাই
ডোবানালা মিলেমিশে ভাগ করে নেবো
আমি যদি ডোবা নিই,তোকে নালা দেবো।

আয় আয় ভাগ করি ভিটে বাড়ি ঘর
টেন্ডার ভাগে রাখি বছর-বছর
যদু মধু কদু যদি তাকিয়েছে আড়
মাথার উপরে নিয়ে মটকাবো ঘাড়।

আয় আয় ভাগ করি দরগাহ,মাজার
ওখানে টাকার দিঘি লক্ষ,হাজার
ভাগ করি টয়লেট, গীর্জা ও মঠ
ভাগ করে নিই যতো ঠাকুরের ঘট।

ভাগ করি রাষ্ট্রকে,কার কত ভাগ-
চোখ তুলে নেবো ওর। যে দেখাবে রাগ।

ছড়াকার : জুলফিকার শাহাদাৎ


সাবস্ক্রাইব করুন! মেইল দ্বারা নিউজ আপডেট পান